দিনরাত ডেস্ক : অবৈধভাবে অর্থ উপার্জন করে কেউ পার পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দুর্নীতি করে, অবৈধ অর্থ উপার্জন করে কেউ পার পাবে না। চলমান দুর্নীতি বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে। জাতির পিতা মন্ত্রিত্বের পদ ছেড়ে দিয়ে দলের সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়েছিলেন জনগণের সেবা করার জন্য। কাজেই আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীর বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দীক্ষা নিতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগের জন্ম মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য। বর্তমান সরকার জনগণের জীবনযাপন উন্নত করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করেছে। আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছি, জনগণের পুষ্টির দিকে নজর দিচ্ছি।

বিএনপি ও জাতীয় পার্টির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা যখন বিরোধী দলে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন করা হয়েছে। হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হাড় গুঁড়ো করে দিয়েছে। চোখ তুলে নিয়েছে। বোমা মেরেছে, গ্রেনেড মেরেছে। বিএনপি ও জাতীয় পার্টি হলো খাওয়া পার্টি।