শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার কেশবপুর ব্রহ্মণডুরা ইউনিয়নের কেশবপুর সাব বাড়ির পীর, মুর্শিদে বরহক শাহসূফী ডা. মাওলানা শেখ মুখলিছুর রহমান জেহাদী (র:) প্রতিষ্ঠিত ২ দিন ব্যাপী উরস মোবারক ও সূফী সম্মেলন কোরআন খতমের মধ্যদিয়ে আজ বৃহস্পতিবার (২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারী) দারুস সালাম মুখলিছিয়া দরবার শরীফ কেশবপুর সাব বাড়িতে অনুষ্টিত হতে হবে।

শুক্রবার রাতে আখেরী মোনাজাতের মধ্যদিয়ে ওরস মোবারকের সমাপ্তি ঘটবে।

উক্ত উরস মোবারক ও সুফী সম্মেলনে সভাপতিত্ব করিবেন মো. সামছুল আলম কেশবপুর, সহ-সভাপতি হিসেবে থাকবেন বিশিষ্ট সিনিয়র সাংবাদিক মো. আব্দুল মালেক চৌধুরী কেশবপুর ও জনাব মো. ফখরুদ্দীন আহমেদ সাজিব, উলুহর।

উরস মোবারক ও সুফী সম্মেলনে দরবার শরীফের বর্তমান খলিফাগণ সহ দেশ বরণ্য পীর মশায়েখ ও প্রখ্যাত উলামায়ে কেরাম শরীয়ত, মারিফত, হাকিকত ও তরিকত সম্পর্কে জ্ঞানগর্ভ ওয়াজ নসিহত করবেন। তন্মধ্যে আলোচনা করবেন বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ, লেখক ও গবেষক আল্লামা মুফতি তানভীরুল ইসলাম আল কাদেরী, বোয়ালখালী, চট্টগ্রাম, দারুস সালাম মুখলিছিয়া দরবার শরীফের খলিফা হযরত মাওলানা আহাম্মদ উল্লাহ খান বিপ্লবী, কেশবপুর, সুমিষ্টভাষি বক্তা হযরত মাওলানা কামাল উদ্দীন জিহাদী সাহেব বি-বাড়িয়া, বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, হযরত মাওলানা আল্লামা মুফতি হায়দার আলী, বাশখালী, চট্টগ্রাম, হযরত মাওলানা রেদুয়ান আহমেদ, কিশোরগঞ্জ, হযরত মাওলানা হাফেজ আব্দুল মোছাব্বির, ইমাম কেশবপুর বাজার জামে মসজিদ, হযরত মাওলানা আবু বকর ছালেহী, সহ-সুপার দাখিল মাদ্রাসা, ব্রাহ্মণডুরা, হাফেজ মাওলানা আল আমিন, উজ্জলপুর।

এছাড়া উরস মোবারক ও সুফী সম্মেলনে বিশেষ অথিতি হিসেবে থাকবেন শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল, ১১ নং ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ আদিল জজ মিয়া, হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল্লাহ সরদার, মাধপুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মজিব উদ্দিন তালুকদার ওয়াসিম, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান গাজীউর রহমান ইমরান, ৭নং নুরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. মুখলিছ মিয়া, ৯নং নিজামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাজ উদ্দিন তাজসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সমাজ সেবক, জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন প্রিন্ট এবং ইলেক্টনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

মাজারের খাদেম আবেদুল হক খোকন জানান, ইতিমধ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভক্ত ও আশেকানরা এসেছেন মাজার প্রাঙ্গনে। ভক্ত ও আশেকানরা দল বেঁধে কোরআন খতম, জিকির আসকার ও মিলাদ মাহফিল মধ্যে দিয়ে উরসের আনুষ্ঠানিকতায় শুরু হবে।

দরবার শরীফ ও মাহফিল উদযাপন কমিটির আহবায়ক শাহজাদা সাংবাদিক শেখ শাহাউর রহমান বেলাল জানান, ঐতিত্যবাহী উরস ও সূফী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে মুর্শিদ ক্বিবলার রূহানি ফায়েজ হাসিল করতঃ ইহকাল ও পরকালের মুক্তির পথ সুগম করার জন্য আহবান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত পহেলা জানুয়ারী রাত ১১টার সময় নফল নামাজের পর জিকিররত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন পীরে কামেল, মুর্শিদে বরহক শাহসূফী ডা. মাওলানা শেখ মুখলিছুর রহমান জেহাদী (র:)।