দিনরাত প্রতিনিধি, খুলনা : সাদাছড়ি ব্যবহার করি, নিশ্চিন্তে পথ চলি’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে খুলনায় বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) বেলা ১১টায় এ দিবসটি পালন উপলক্ষে খুলনা জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের আয়োজনে সার্কিট হাউস সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে নগরীর শহিদ হাদিস পার্ক থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে সার্কিট হাউস এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করে।

আলোচনা সভায় অতিথিরা বলেন- দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়, সম্পদ। জন্মগতভাবে প্রতিবন্ধী হতে পারে বা জন্মের পরও হতে পারে। ভিন্ন দৃষ্টিতে না দেখে তাদের সমাজের মূল স্রোতের অংশ হিসেবে দেখতে হবে। সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য সকল সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করেছে। সরকারের পাশাপাশি যার যার অবস্থান থেকে নিজ সন্তান মনে করে প্রতিবন্ধীদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে হবে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। স্বাভাবিক শিশুর মতো প্রতিবন্ধী শিশুদের প্রতিও সমানভাবে যতœশীল হতে হবে।

সভায় অতিথিরা আরো বলেন, সরকার ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ১০ লাখ থেকে বাড়িয়ে ১৫ লাখ প্রতিবন্ধীদের ভাতার আওতায় আনার চিন্তা করছে। দেশে প্রায় ৪৮ লাখ প্রতিবন্ধী বয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকলকে এই ভাতার আওতায় আনা হবে। এছাড়াও সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য একটি অধিদপ্তর করার চিন্তা করছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক মো. আব্দুর রহমান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল এবং মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ এটিএম মঞ্জুর মোর্শেদ। স্বাগত জানান জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপপরিচালক খান মোতাহার হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শেখ নূর মোহাম্মদ এবং প্রতিবন্ধী কর্মকর্তা মৌসুমি দেব।

এ সময় প্রধান অতিথি ২০ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ করেন।