দিনরাত ডেস্ক : পাবনার চাটমোহর উপজেলায় ঘরে ঢুকে মাদ্রাসাছাত্রীকে এসিড নিক্ষেপ করেছে দুই কিশোর। তাদেরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার বনগ্রাম সরকারপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় ওই মাদ্রাসাছাত্রী পড়াশুনা করছিলেন।

এসিড আক্রান্ত ছাত্রীর নাম সবুরা খাতুন (১৪)। তিনি উপজেলার বনগ্রাম সরকারপাড়া গ্রামের ব্যবসায়ী সলিলুর রহমানের মেয়ে ও বনগ্রাম বেনিয়াজী দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্রী। তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আটক দুই কিশোর হলো-উপজেলার পার্শ্বডাঙ্গা ইউনিয়নের বনগ্রাম পশ্চিম চকপাড়া গ্রামের হাসিবুর রহমানের ছেলে রতন হোসেন (১৮) ও বনগ্রাম পুকুরপাড়া গ্রামের মুক্তার হোসেনের ছেলে রিপন হোসেন (১৭)।

ছাত্রীর বাবা সলিলুর রহমান অভিযোগ জানান, শুক্রবার রাতে ঘরে পড়াশোনা করছিল সবুরা। ঘরের দরজা খোলা ছিল। এ সময় তাকে লক্ষ্য করে এসিড নিক্ষেপ করে পালানোর সময় রতন ও রিপনকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে এসিড আক্রান্ত সবুরাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তবে কী কারণে এসিড নিক্ষেপ করা হয়েছে তা তিনি জানাতে পারেন নি।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেখ নাসীর উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আটক দুইজনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। কী কারণে এসিড নিক্ষেপ করেছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।