দিনরাত প্রতিনিধি, চুনারুঘাট : চুনারুঘাট উপজেলা ঘনেশপুরের এক নারীকে শ্লীলতাহানি করার অভিযোগে মিতালী পরিবহনের বাস চালক রাসেল মিয়াকে (৩০) উত্তম-মধ্যম দিয়েছে জনতা। সে বরিশালের ভোলার বাসিন্দা বশির মিয়ার ছেলে।

গতকাল দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে শ্লীলতাহানীর শিকার নারীর স্বজনরা মিলে শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রিজ এলাকায় বাস চালক রাসেল মিয়াকে আটক করে উত্তম-মধ্যম দিয়ে কান ধরে উঠবস করায়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে বাড়ি ফেরার জন্য মিতালী বাসে উঠেন ঘনেশপুরের এ নারী। বাসটি ছেড়ে ভৈরব এসে দাড় করায়। এ সময় এ নারী প্রাকৃতিক কাজের স্থান কোথায় পাওয়া যাবে চালক রাসেলকে জিজ্ঞাস করে। চালক তাকে বলে এ স্থানে নিরাপত্তার অভাব রয়েছে। তবে চিন্তা করতে হবে না, আসুন আমার সাথে। এ কথায় সরল বিশ্বাসে নারী প্রাকৃতিক কাজ সারার জন্য তার সাথে যায়। সুযোগ পেয়ে সে নারীর শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। এ সময় সে সুরচিৎকার দিলে স্থানীয়রা জড়ো হন। তাৎক্ষণিক কৌশলে নারীর হাত পা ধরে ম্যানেজ করে তাকে বাসে নিয়ে আসে চালক।
এদিকে বুদ্ধিমাত্রা কাটিয়ে এ নারী মোবাইলে বিষয়টি তার স্বজনদেরকে জানায়। পরে তারা নতুন ব্রিজ এসে তাকে বাস থেকে উদ্ধার করে।