হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে শতবর্ষী বৃদ্ধা তৈয়জ উল্ল্যা। একমাত্র ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়াও শারীরিক প্রতিবন্ধি। অসহায় বৃদ্ধ ও তার প্রতিবন্ধ ছেলেকে না খেয়েই দিনানিপাত করতে হয়।

তাদের এই দুঃখ-দূর্দশার কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে তুলে ধরে স্থানীয় এক সাংবাদিক। সেই ফেসবুক লাইভ দেখে অসহায় পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সত্যজিত রায় দাশ।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) রাতে ওই বৃদ্ধের বাড়িতে একটি হুইল চেয়ার ও ৩০ কেজি নিয়ে হাজির হন ইউএনওসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তারা। এ সময় বৃদ্ধের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়াকে একটি প্রতিবন্ধি ভাতার কার্ড দেয়ারও আশ্বাস দেন তিনি।

ইউএনও জানান, চুনারুঘাট উপজেলার রহমতাবাদ গ্রামের বাসিন্দা তৈয়জ উল্ল্যা তার শারিরীক প্রতিবন্ধী ছেলেকে নিয়ে অনেক কষ্টে ছিলেন। ফেসবুক লাইভের কল্যাণে বিষয়টি আমার নজরে আসে। তাই বৃদ্ধের অসহায়ত্ব, শারীরিক অক্ষমতা ও কষ্টের কথা বিবেচনা করে তাৎক্ষণিক আমি ঘটনাস্থলে ছুটে চাই। ইতোমধ্যে বৃদ্ধের ছেলের জন্য একটি হুইল চেয়ার ও ৩০ কেজি দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘প্রয়োজনে পরিবারটিকে আরও সহায়তা দেয়া হবে। এছাড়া বৃদ্ধের ছেলেকে একটি প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ডও দেয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’