ছাতকে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৪০ ব্যক্তি আহত হয়েছে। গুরুতর আহত ১০ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সেমাবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার জাউয়াবাজার ইউনিয়নের সাউদেরগাঁও গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার গ্রামের মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করতে লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে মসজিদের অভ্যন্তরেই কথা কাটা-কাটি হয় সাউদেরগাঁও গ্রামের মৃত কলমদর খানের ছেলে দৌলত খান ও মৃত রশিদ মিয়ার ছেলে আজাদ মিয়ার মধ্যে। এ নিয়ে গ্রামের উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে গত কয়েকদিন ধরে উত্তেজনা বিরাজ করে আসছিল।

সোমবার সকালে এ ঘটনার জের ধরে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে উভয় পক্ষের লোকজন তুমুল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে জাউয়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। প্রায় আধঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৪০ ব্যক্তি আহত হয়।

গুরুতর আহত মরম আলী, লিটন মিয়া, সায়েদ মিয়া, দৌলত খান, ওলাছ খান, সুজন খান, আলী নূর, রনিছা বেগম, সুয়েব খান ও গয়াছ খানকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মহিব উদ্দিন, গৌছ আলী, সিদিক মিয়া, মনির উদ্দিন, জনেদ খান, আখলুছ মিয়াসহ অন্যান্য আহতদের কৈতক হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।