দিনরাত প্রতিনিধি, রাবি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী ছিনতাইকারীর হাতুড়ির আঘাতে মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার রাত পৌনে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ফিরোজ আনাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বাড়ি রংপুরের বদরগঞ্জে। আহত অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৮নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে আহত ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান বলেন, ‘আহত ফিরোজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার সঙ্গে রয়েছে আমাদের সহকারী প্রক্টর। তার সঙ্গে কথা বলেন।’

হাসপাতলে ফিরোজের সঙ্গে যাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর এসএম মোখলেসুর রহমান মিলন ভুক্তভোগীর বান্ধবীর বরাত দিয়ে বলেন, ‘ফিরোজ ও তার বান্ধবী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেডিয়ামে একটি কম্পিউটার দোকানে কাজ করে ফিরছিলো। তখন মোটরসাইকেলে দুই জন এসে তাদের পথ আটকে দাঁড়িয়ে মোবাইল কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। ফিরোজ মোবাইল দিতে অস্বীকৃতি জানালে ছিনতাইকারীরা তাকে হাতুড়ি জাতীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। পরে একপর্যায়ে মোবাইল ফেলে রেখে ছিনতাইকারীরা চলে যায়।’

অর্থনীতি বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, ‘আমি হাসপাতালে রয়েছি। ফিরোজের চিকিৎসা চলছে। যাবতীয় ওষধপত্র কেনা হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনার পর ক্যাম্পাসে অভিযান চলছে।’

নগরের মতিহার থানার ওসি হাফিজুর রহমানও একই কথা বলেন।