জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের ভর্তির কার্যক্রম ৮ জুন থেকে শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়টির সংবাদ বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে বুধবার জানানো হয়, স্থগিত সব পর্যায়ের পরীক্ষা ২৪ মের আগে শুরু হচ্ছে না।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক ফয়জুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘করোনার কারণে স্থগিত হওয়া পরীক্ষা সংশোধিত সময়সূচি অনুযায়ী নেয়া হবে।’

ফয়জুল করিম বলেন, ‘২০১৯ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স দ্বিতীয় বর্ষের স্থগিত পরীক্ষা এবং ২০১৮ সালের মাস্টার্স শেষ পর্বের পরীক্ষাসহ অন্য সব প্রফেশনাল কোর্সের স্থগিত পরীক্ষা ২৪ মে শুরু হবে।

‘এ ছাড়া ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের ভর্তির কার্যক্রম ৮ জুন থেকে শুরু হবে। স্থগিত হয়ে যাওয়া পরীক্ষার বিস্তারিত সংশোধিত সময়সূচি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।’

চলমান পরীক্ষা অব্যাহত রাখার দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছেন। তাদের কথা বিবেচনায় নিয়ে ২৪ মের আগে পরীক্ষা নেয়ার কোনো পরিকল্পনা আছে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে ফয়জুল করিম বলেন, ‘পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে। আমরা সবকিছু জেনে বুঝেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ২৪ মের আগে পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ নেই।’

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৯ সালের দ্বিতীয় বর্ষ ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্সের পরীক্ষা ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে সারা দেশে একযোগে শুরু হয়। পরীক্ষা চলার কথা ছিল ২৩ মার্চ পর্যন্ত। আর ২০১৯ সালের স্নাতক চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা গত ১৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়।

২২ ফেব্রুয়ারি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সরকারি সিদ্ধান্তের আলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সব পরীক্ষা স্থগিত রাখা হচ্ছে।

তবে বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২৪ মে থেকে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরুর সঙ্গে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হয়ে যাওয়া পরীক্ষাও শুরু হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত হওয়া পরীক্ষা শুরুর দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল থামিয়ে দেয় পুলিশ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য থেকে শুরু হওয়া ওই বিক্ষোভ মিছিল শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে পৌঁছলে ব্যারিকেডের মুখে পড়ে।