দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম টিকা নেয়া রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা জানিয়েছেন, তিনি সুস্থ আছেন। সবাই যেন টিকা নেয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার বিকেলে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। আজ টিকাদানের জন্য বাছাই করা হয় ২৫ জনকে।

টিকা গ্রহণের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় রুনু বলেন, ‘আমি সুস্থ আছি। দেশবাসীকে করোনার টিকা নিতে অনুরোধ জানাচ্ছি। এই টিকা নেয়ার মধ্য দিয়ে দেশে করোনামুক্ত হবে।

‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমি প্রথম টিকা নিতে অনেক আনন্দ ফিল করছি। এর মাধ্যমে একটি ইতিহাসের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরেছি।’

দেশবাসীর জন্য কিছু বলতে চান কি না জানতে চাইলে রুনু বলেন, ‘দেশবাসীর কাছে আমার একটাই অনুরোধ, আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। আমি যেমন ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছি, দেশের জনগণ ও যাতে আস্থা পায়; আস্থা পেয়েই ভ্যাকসিন গ্রহণ করে। সবাই যাতে এই ভ্যাকসিন নেওয়ায় উদ্বুদ্ধ হয়, এটাই আমার চাওয়া।’

করোনার রোগের সেবা দেয়া নিয়ে এ নার্স বলেন, ‘করোনাভাইরাসে গোটা বিশ্ব স্থবির হয়েছিল। এককথায় নীরস। তখন স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে নিজেও একটু ভয় পেয়েছিলাম। তবে নিজে নিজেই সাহস জুগিয়েছি; ভেবেছি আমাকে পিছিয়ে গেলে চলবে না।

‘ব্যক্তিগতভাবে আমি নিজের সাথে নিজের লড়াই করেছি, সংসার ফেলে এসে রোগীর সেবা দিয়েছি। এখন টিকা আসছে, এটা খুশির খবর।’