দিরাই প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে জগদল ইউনিয়নের কালধর গ্রামে দুগ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও তিন জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। নিহতের নাম আমির উদ্দিন ( ৫০), পিতা মৃত সাজিদুল্লাহ। আহত কলিয়ারকাপন গ্রামের শালিস ব্যাক্তিত্ব দিলোয়ার সহ দুজনকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা যায়, দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কালধর গ্রামে রবিবার সকালে দু গ্রুপের মধ্যে প্রায় ঘন্টাব্যাপি তুমুল সংঘর্ষে চলে।

এলাকাবাসী জানায়, গ্রামের পঞ্চায়েতের ক্যাশিয়ার ফারুক মিয়া, মনু মিয়া ও আউয়াল মিয়া টাকার হিসাব দেখাতে টালবাহানা করলে গ্রাম ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের চলাফেরায় উপর বিধি নিষেধ আরোপ করে।

রোববার সকালে আউয়াল মিয়ার ট্রাক্টর নিয়ে জমিতে যাওয়ার পথে গ্রামবাসী বাধা দিলে মনু মিয়া শফিকুল ইসলামের মোটর বাইট রাস্তায় পেয়ে ভাংচুর করলে সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে। অতপর গ্রামবাসী ফারুক মিয়ার বাড়ি ঘেরাও করে আক্রমণ করলে ফারুক মিয়া প্রাণ বাঁচাতে গুলি ছুড়লে কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেবার পথে সাজিদুল্লাহর ছেলে আমীরুদ্দীন (৫০) মারা যান।

খবর পেয়ে দিরাই থানার পুলিশ কালধর গ্রামের ফারুক মিয়াকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাস্থলে পুলিশ অবস্থান নিয়েছে।