হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে মহামারি করোনায় কেড়ে নিল খালেদ আহমদ চৌধুরী (৫৬) নামের আরো একজনের প্রাণ। মহামারি করোনায় নবীগঞ্জ উপজেলায় এ পর্যন্ত ৫ জন মৃত্যু হয়েছে।

মৃত খালেদ আহমেদ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের ঘোলডুবা গ্রামের কটা মিয়ার ছেলে।

গত শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১ টায় জানাজার নামাজ শেষে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

করোনায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার চাচাতো ভাই সাজ্জাদ আহমদ চৌধুরী। দাফন কাজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৬ জন পিপি ব্যবহার করে অংশ নিলেও জানাজার নামাজে অংশ নেন প্রায় ৩ শতাধিক লোক।

জানা যায়, খালেদ আহমদ চৌধুরী প্রায় ১০/১২ দিন আগে সর্দি জ্বর নিয়ে নবীগঞ্জ শহরে ডা. ননী গোপাল নাথের কাছে আসেন চিকিৎসা নিতে। তার অবস্থা দেখে ডাক্তার তাকে সিলেট যাবার পরামর্শ দেন। এরপরই তিনি সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার করোনা পজেটিভ আসে। সেখানে চিকিৎসাধিন থাকার পর শুক্রবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে দিকে তিনি মারা যান।

শনিবার সকাল ১১টায় গ্রামের মাঠে মরহুমের জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রায় ৩ শতাধিক মানুষের উপস্থিতি ঘটে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডা. আব্দুস সামাদ জানান, এ বিষয়ে কেউ তাকে অবগত করেনি। তার চিকিৎসা নবীগঞ্জ হাসপাতালে করা হয়নি। এ পর্যন্ত এ উপজেলায় করোনায় মারা গেছেন ৫ জন।