অতিরিক্ত ভাড়া আদায়, স্বাস্থবিধি না মানা ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য নিয়ন্ত্রনের লক্ষে নবীগঞ্জে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে নবীগঞ্জ পৌর শহরতলীর বিভিন্ন স্থানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়, স্বাস্থবিধি না মানা ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রয় করায় ৬টি মামলায় ৬ জনকে ২ হাজার ৪ শ’ টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে।

জানা যায়, মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে মাস্ক পরিধান না করে ও স্বাস্থবিধি না মেনেই নবীগঞ্জ শহরে জনসাধারন অবাধে চলাফেরা করছিল। বেশ কয়েকদিন ধরে সিএনজি, টমটমসহ গণপরিবহনগুলোতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছিল এবং কিছু অসাধু ব্যাবসায়ীরা অতিরিক্ত মূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য বিক্রি করছিল। যার ফলে জনসাধারণকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছিল। এ অবস্থায় জনসাধারণের ভোগান্তি লাঘবের লক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন থানা পুলিশের সহযোগীতায় নবীগঞ্জ শহরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৬ জনকে ২হাজার ৪শত টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিনের সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি বলেন, জনসাধারণের ভোগান্তি লাঘবে সরকার বদ্ধপরিকর। নিয়ম মেনে সবাই ব্যাবসা প্রতিষ্টান পরিচালনা করবেন। জনসাধারণের ভোগান্তি লাঘবে প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। মহামারি করোনা পরিস্থিতিতে প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হবেন না। ঘর থেকে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করে স্বাস্থবিধি মেনে চলাফেরা করবেন।