দিনরাত প্রতিবেদক, নবীগঞ্জ : হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠিত হয়েছে বলে গুজব ছড়িয়েছে একটি মহল। শহর থেকে গ্রামাঞ্চল পর্যন্ত ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিষয়টি উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ! আবার কমিটির পদবী নিয়ে উত্তেজনাও ছড়িয়ে পড়েছে চারদিকে। তবে নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের কোন কমিটি দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন জেলা পর্যায়ের নেতারা।

জানা যায়, সাম্প্রতিক সময়ে নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণা হয়েছে এমন গুহব হঠাৎ করেই ছড়িয়ে দেয়া হয়। অনেকে আবার প্রচার করছেন কমিটির সভাপতি দেয়া হয়েছে রায়েছ আহমেদ চৌধুরীকে এবং ফুয়াদ হাসান রাজনকে সাধারণ সম্পাদক। বিষয়টি নিয়ে এখন পর্যন্ত গুজবে সিমাবদ্ধ থাকলেও অপ্রিতিকর ঘটনার আশঙ্কা করছেন অনেকে। কারণ ইতোমধ্যেই পক্ষে-বিপক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

রায়েছ ও রাজনের অনুসারীরা ছাত্রদলের কমিটি হয়েছে এমন দাবী করলেও জেলা ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন। তারা বলছেন- বিগত প্রায় ৯ বছর পূর্বে ২০১১ সালে হারুনুর রশীদ হারুনকে আহবায়ক করে নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করা হয়। দীর্ঘ ৯ বছরেও ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি আলোর মুখ দেখেনি। কমিটি না হওয়ার কারণে সংগঠনের মধ্যে নতুন নেতৃত্ব গড়ে উঠছে না। ছাত্র সংগঠনের নেতৃত্ব দখলে রয়েছেন বেশি অছাত্ররাই। যাদের ছাত্রত্ব চলে গেছে ১০ বছর আগে এমন ছাত্রদল নেতা আছেন সংগঠনের মধ্যে। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আহবায়ক কমিটির মেয়াদ ৩ মাস থাকলেও ৯ বছরেও কমিটি হচ্ছে না। এর ফলে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছেন। কয়েক মাস পূর্বে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী ছাত্রদলের প্রত্যেকটি ইউনিট গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করে হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদল।

এ ব্যপারে হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক রুবেল আহমেদ চৌধুরী বলেন, নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের কোনো কমিটি ঘোষনা করা হয়নি। কমিটি ঘোষণার বিষয়টি শুধুই গুজব।

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি এমদাদুল হক ইমরান বলেন, কেন্দ্রেীয় নির্দেশনা যেখানে নেই সেখানে কমিটি ঘোষণার তো প্রশ্নই আসেনা। এমন গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নবীগঞ্জ উপজেলার নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান তিনি।