সঙ্গীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সির সংসার ভাঙার গুঞ্জন উঠেছে।

৮ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) সকালে তার স্বামী নাজিমুদ্দিন জায়েদের ফেসবুকে পোস্ট থেকে ঘটনার সূত্রপাত।

ফেসবুক পোস্ট জায়েদে লেখেন, ‘আমি এবং আমার স্ত্রী পারিবারিক অমতে এবং আরও বিবিধ কারণে আর একত্রে থাকছি না । আমরা বহুদিন চেষ্টা করেছি এক ছাদের নিচে থাকবার কিন্তু সেটা হয়ে ওঠেনি। পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ থেকেই আলাদা হয়ে গেলাম। আমি আমার একমাত্র কন্যা সন্তান নায়লা কে নিয়ে পিত্রালয়ে আছি। নায়লার সমস্ত দায় দায়িত্ব এখন থেকে আমার। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।’

এ বিষয়ে ন্যান্সি বলেন, ‘এমন কিছুই হয়নি। আমি গতকাল আমার মায়ের বাসায় এসেছি। জায়েদ সকালে ফোন দিয়ে বললো তার আইডিতে ঢুকতে পারছে না। কিন্তু বিষয়টি এ পর্যন্ত চলে গেছে তা তো জানি না।’

ন্যান্সির স্বামী নাজিমুদ্দিন জায়েদের সঙ্গেও যোগাযোগ করা হয়। তিনি বলেন, ‘এমন কিছুই তো আমি জানি না। আইডি সকাল থেকে ঢুকতে পারছি না। বিষয়টি দেখে জানতে পারবো। আর ডিভোর্সের মত কোনো ঘটনা ঘটেনি।‘

২০১৩ সালের ৪ মার্চ নাজিমুজ্জামান জায়েদকে বিয়ে করেন ন্যান্সি। তিনি একজন ময়মনসিংহ পৌরসভার কর্মকর্তা। তাদের সংসারে নায়লা নামে এক কন্যা রয়েছে।

কিছুদিন ধরে সময়টা খারাপ যাচ্ছে ন্যান্সির। সঙ্গীতশিল্পী আসিফ আকবরের সঙ্গে মামলা নিয়ে এক বিতর্ক চলছিল কয়েকদিন। তার কিছুদিন পরই তার ফেসবুক পেজ বন্ধ করে দেন। তবে এর আগে বন্ধের কারণ ও তার বর্তমান অবস্থা সেখানে উল্লেখ করেন।

ফেসবুক পেজ বন্ধের কারণ জানাতে ২০ মিনিট ন্যান্সি লেখেন, ‘অযাচিত কৈফিয়ত দেবার আগ্রহ হারিয়েছি অনেক আগেই। এখন নতুন করে কাউকে জবাবদিহি করার কারণ খুঁজে পাচ্ছি না। দেখেও না দেখার ভান করা স্বভাবে নেই। সত্য বলতে জানি, শুনতেও জানি। মিথ্যুক, খোলস পরা, বিকৃত রুচির মানুষদের কাছ থেকে দূরে থাকাই শ্রেয়। আমি আমার লোকদের নিয়ে আনন্দেই আছি। শত প্রতিকূলতাতেও মনকে কখনও কলুষিত করতে দেইনি, আজও দিবোনা।’