সিলেটের প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক তরুণীকে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ করে প্রতারণার অভিযোগ ওঠেছে এক তরুণের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আদিল হোসাইন লিমন (২৩) নামের ওই তরুণ বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি রাতেই নগরের মিরবক্সটুলা এলাকা থেকে সিলেটের কতোয়ালি থানা তাকে আটক করে।

সে সুনামগঞ্জের বাসিন্দা হলেও বর্তমানে নগরের মীরবক্সটুলায় বসবাস করেন।

এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি লিমনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতনসহ পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেন ওই তরুণী।

এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন জানান, পূর্ব পরিচয়ের সুবাধে ওই তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন লিমন। গত ১২ ফেব্রুয়ারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অসুস্থ বাবাকে দেখতে সিলেট আসেন তরুণী (২৩)। দুপুরের দিকে তরুণীকে নিয়ে নগরের তালতলা এলাকার হোটেল বিলাসে নিয়ে যান লিমন। সেখানে তরুণীকে ধর্ষণ করে মোবাইল ফোনে এর ভিডিওচিত্রও ধারণ করে রাখে লিমন।

তরুণীর অভিযোগ, ওই ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে তরুণীর কাছে টাকা দাবি করে লিমন। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি লিমনকে ৫ হাজার টাকা দেন তরুণী। এরপর পুণরায় শারিরীক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য তরুণীকে চাপ দিতে থাকেন লিমন। এতে রাজী না হওয়ায় ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় সে। এরপর তরুণী থানায় মামলা দায়ের করেন।