দিনরাত বিনোদন ডেস্ক : বলিউড বাদশা, কিং খান, রোমান্স কিং কত উপাধিতেই না বিশেষণ করা হয় একজন নায়কে। তিনি শুধুই শাহরুখ খান। দর্শক ও আয়ের দিক থেকে তাকে বলা হয় বিশ্বের অন্যতম সফল চলচ্চিত্র তারকা।

১৯৬৫ সালের আজকের দিনে নতুন দিল্লির এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন শাহরুখ। বেড়ে উঠেন দিল্লির পার্শ্ববর্তী রাজেন্দ্র নগর এলাকায়।

৮০-এর দশকের শেষের দিকে বেশ কিছু টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয়ের মাধ্যমে শাহরুখ পা রাখেন পর্দার দুনিয়ায়। এরপর ১৯৯২ সালে মুক্তি পায় তাঁর প্রথম সিনেমা ‘দিওয়ানা’। ক্যারিয়ারের শুরুতে শাহরুখ পরিচিতি লাভ করেন খল চরিত্রে অভিনয় করে। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। অসংখ্য বাণিজ্যিকভাবে সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, হয়ে উঠেছেন বলিউড সিনেমার বাদশা।

১৯৯১ সালে ভিন্নধর্মের অনুসারী প্রযোজক গৌরি খানকে বিয়ে করেন শাহরুখ। সেই ঘরে তার তিন সন্তান রয়েছে। তারা হলেন সুহানা খান, আরিয়ান খান এবং আবরাম খান। শুধু অভিনয় নয়, শাহরুখ নাম লিখিয়েছেন প্রযোজনায়। তাঁর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাম রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট। এছাড়া আইপিএলের কলকাতা নাইট রাইডার্স সহ বেশ কয়েকটি দেশের ক্রিকেট ও ফুটবল ক্লাবের সহ-কর্ণধার শাহরুখ।

ক্যারিয়ারে এ অবধি এসে শাহরুখের ঝুড়িতে আছে চৌদ্দটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, যার আটটিই শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার। হিন্দি চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য ২০০২ সালে ভারত সরকার শাহরুখ খানকে পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত করে।