হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে ‘কে আসল চৌধুরী, আর কে নকল চৌধুরী’ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত একজনকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল ও বানিয়াচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বানিয়াচং উপজেলার কাগাপাশায় এ ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ জানায়, কাগাপাশা গ্রামের আলগা বাড়ির বোরহান চৌধুরী ও পশ্চিম হাটির ওয়াসিক চৌধুরীর গোষ্টির মধ্যে ‘আসল-নকল’ চৌধুরী নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিষয়টি নিয়ে উভয় পক্ষের যুবকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও লেখালেখি করে আসছিল।

মঙ্গলবার বিকেলে ওয়াসিক চৌধুরীর পক্ষের এক যুবক নিজেদেরকে আসল চৌধুরী এবং বোরহান চৌধুরীর লোকজনকে নকল চৌধুরী দাবি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়। বিষয়টি জানার পর বোরহান চৌধুরীর পক্ষের কয়েকজন যুবক কমেন্ট সেকশনে প্রতিবাদ জানায়।

এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশিয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। খবর পেয়ে বানিয়াচং থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করে।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরান হোসেন বলেন, ‘আসল চৌধুরী এবং নকল চৌধুরী নিয়ে দুই গোষ্টির মধ্যে হালকা সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। তবে কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া পূণরায় সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।