হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে জলমহাল দখলকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। দফায় দফায় চলা এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-শিশুসহ অন্তত শতাধিক লোক আহত হয়। এ সময় সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ আনতে পুলিশ ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উপজেলার কামাল খানী ও মজলিশপুর গ্রামবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, ‘কানিভাঙ্গা’ নামক একটি জলমহাল নিয়ে কামালখানী ও মজলিশপুর গ্রামবাসীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে শুক্রবার সকালে দুই গ্রামবাসী মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে নারী শিশুসহ শতাধিক লোক আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘঁনআস্থলে পৌঁছে ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ করেন।

এদিকে, গ্রেফতার এড়াতে আহত অনেকে সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে চলে গেছেন বলে জানান স্থানীয় লোকজন।

বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরান হোসেন বলেন, ‘দুর্গম হাওর এলাকায় হওয়ায় পুলিশ পৌঁছাতে সময় লেগেছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পাশাপাশি এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শেখ সেলিম বলেন, ‘পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণ আনতে ২০ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। পূণরায় সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।’