বানিয়াচংয়ে লকডাউনকে উপেক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৮ জনকে জরিমানা করেছেন উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা।

জানা যায়, লকডাউনে বাস্তাবায়নে বানিয়াচং উপজেলার বিভিন্ন প্রবেশদ্বারে চেকপোস্ট বসিয়েছে পুলিশ। টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনীর সদস্যরাও। লকডাউনে আয়ের পথ বন্ধ হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে রিকশায় যেতে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ ভাড়া। গত দিনের তুলনায় বুধবার বানিয়াচং সদরে রিকশা, মোটরসাইকেল ও ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা বেশি ছিল।

নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ রানা জানান, সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নে এবং মানুষজনের মধ্যে সচেতনতা তৈরীতে নিয়মিতভাবে বানিয়াচং সদরের বিভিন্ন জনবহুলস্থানে সেনা বাহিনী, পুলিশ সদস্যদের সমন্বয়ে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার উপজেলায় ১৮ জনকে ৪ হাজার ১শ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, রাস্তায় কোন অসহায় মানুষজন পেলে তাকে আমরা যথা সম্ভব খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে বিভিন্ন ইউনিয়নে লকডাউনে কাজ হারানো অসহায় মানুষজনকে সরকারীভাবে খাদ্য সহায়তা দেয়া হচ্ছে।