মোহাম্মদ শাহ্ আলম, হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে উপজেলা সদরের শরীফ উদ্দিন সড়ক এলাকায় ৪র্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মমূর্ষ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে ওই ছাত্রীকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের ভর্তি, করা হয়। এরআগে বিকাল সাড়ে ৩টায় এ ঘটনাটি ঘটে।

সে উপজেলার জাতুকর্ণ পাড়ার মালদ্বীপ প্রবাসী লালন মিয়ার কন্যা ও স্থানীয় শান্তিপাড়ার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী।

ওই ছাত্রীর পিতা জানান, শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টার সময় তার কন্যা ১৫ টাকা নিয়ে বাড়ির পাশে শরীফ উদ্দিন সড়কে একটি মুদি দোকানে যায়। এ সময় ওই দোকানের মালিক ইউসুফ আলীর ছেলে আব্দুল মন্নান (২৮) শিশুটিকে কৌশলে দোকানের পাশে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে তার কবল থেকে দৌড়ে বাহিরে এসে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে রক্ষা করে। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ডাক্তার হায়দার আলী জানান, ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ এনে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নখের আচরের ক্ষত রয়েছে। শনিবার পরিক্ষার পর আসল কারন বেয়িয়ে আসবে।

বানিয়াচঙ্গ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রঞ্জিত সমান্ত জানান- এখনো কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।