হবিগঞ্জের বাহুবলে ওয়াজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে আলমগীর মিয়া (১৭) নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের বাংলাবাজারে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আলমগীর উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামের আফতাই মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, নবীগঞ্জ উপজেলার বড়চর গ্রামের একটি ওয়াজ শুনে বাড়ি ফেরার পথে পুটিজুরী ইউনিয়নের বাংলাবাজার নামক স্থানে পৌঁছলে মোটরসাইকেল ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে আসা দুর্বৃত্তরা আলমগীরের মাথায় কোপ দেয়। এতে সে মাঠিতে লুঠিয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধু মুন্নাসহ স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাহুবল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলমগীরকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বন্ধু উপজেলার যাদবপুর গ্রামের মুন্না জানান, গত ৬ জানুয়ারি মুগকান্দি গ্রামের মজনু শাহর উরসে সম্ভপুর গ্রামের আকাশ নামে এক ছেলের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আলমগীরের। মঙ্গলবারও তাদের সঙ্গে বড়চর গ্রামের হাফিজুর রহমান কুয়াকাটা হুজুরের ওয়াজে ধাক্কাধাক্কি হয়। এরই জের ধরে আকাশ ও তার লোকজন এ ঘটনা ঘটাতে পারে।

এদিকে, একটি সূত্র জানায়, হাসপাতাল থেকে মুন্নাকে আটক করে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুজনকে আটক করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাহুবল থানার এএসআই সাইদুল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।