ভারতের মধ্যপ্রদেশের সিধি জেলায় ৩০ ফুট গভীর এক খালে যাত্রীবাহী একটি বাস পড়ে অন্তত ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, সিধি থেকে সাতনা জেলাগামী বাসটিতে প্রায় ৫০ জন যাত্রী ছিলেন। বাসটি খালে পড়ে যাওয়ার পর সাত যাত্রী সাঁতরে নিরাপদ স্থানে পৌঁছান।

স্থানীয় রেওয়া এলাকার বিভাগীয় কমিশনার রাজেশ কুমার জৈন বলেন, ‘আমরা এখন পর্যন্ত ৪২ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। এগুলো ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার কাজ চলছে।’

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খালে বাসটি পুরোপুরি ডুবে যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি খালে পড়ে যায়। খালটির পানি কমাতে বাঁধ ছেড়ে দেয়া হয়েছে, যাতে করে উদ্ধার তৎপরতা সহজ হয়।

এ ঘটনায় শোক জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘মধ্যপ্রদেশের সিধিতে ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনায় শোকাহতদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা। উদ্ধার তৎপরতায় এবং ত্রাণকাজে স্থানীয় প্রশাসন সক্রিয়ভাবে কাজ করছে।’

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে নিহত প্রত্যেকের পরিবারের জন্য ২ লাখ রুপি করে সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। আর আহত প্রত্যেককে দেয়া হবে ৫০ হাজার রুপি।

গভীর শোক প্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কভিন্দ বলেছেন, ‘এই দুর্ঘটনায় যারা তাদের প্রিয়জনকে হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’