দিনরাত প্রতিবেদক : হবিগঞ্জের মাধবপুরে প্রশাসনের জব্দকৃত ৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে পদদলিত হয়ে শিশুসহ অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) রাতে উপজেলা চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর জানান, চুনারুঘাট থেকে পেঁয়াজ ভর্তি একটি পিকআপ (ঢাকা মেট্রো- ১৫-৪৩৫৭) মাধবপুর হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া যাওয়ার পথে পুলিশ আটক করে। পরে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসনুভা নাশতারানের উপস্থিতিতে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলা চত্বরে জব্দকৃত পেঁয়াজগুলো ৫০ টাকা কেজি দরে সাধারণ ক্রেতাদের কাছে বিক্রি শুরু হয়। এ খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় জনতা উপজেলা চত্বরে পেঁয়াজ কিনতে ভিড় করেন।

এ সময় লোকজনদের ধাক্কাধাক্কিতে পদদলিত হয়ে নারী ও শিশুসহ অন্তত পাঁচজন আহত হন। পরিস্থিতি খারাপ দেখে উপজেলা নিবার্হী কর্মকতার নির্দেশে পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে আহতদের উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, কয়েক বস্তা পেঁয়াজ বিক্রি করার পর বাকি পেঁয়াজের বস্তা উপজেলা মিলনায়তনে নিয়ে রাখা হয়। তবে এই পেঁয়াজগুলোও সাধারণ ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করা হবে বলে জানান উপজেলা নিবার্হী কর্মকতা।

এ ব্যাপারে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসনুভা নাশতারান বলেন- ‘রাতে পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় তাৎক্ষণিখ পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। তবে আজ (শুক্রবার) আবারও পেঁয়াজগুলো সাধারণ ক্রেতাদের মধ্যেই বিক্রি করা হবে।