হবিগঞ্জের মাধবপুরে স্থানীয় এক সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত করেছে বিএনপির নেতা।

রোববার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার চৌমুহনী বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সাংবাদিক মো. দুলাল সিদ্দিকী বাদি হয়ে মাধবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মাধবপুর উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের মৃত ইউসুফ আলী মেম্বারের ছেলে স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক প্রভাকর’র মাধবপুর উপজেলা প্রতিনিধি মো. দুলাল সিদ্দিকীর একটি ট্রাক্টর রয়েছে। ট্রাক্টর ভাড়া দিয়ে তিনি ব্যবসা করে থাকেন।

গত কিছুদিন যাবত উপজেলার কমলানগর গ্রামের মোঃ ইদ্রিস আলীর ছেলে চৌমুহনী ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলী সাংবাদিক দুলাল সিদ্দিকীর নিকট রাস্তায় ট্রাক্টর চালাতে হলে জাহাঙ্গীর আলমকে ১ হাজার টাকা করে দিতে বলেন। দুলাল সিদ্দিকী টাকা দিতে অস্বীকার করলে জাহাঙ্গীর আলী ক্ষিপ্ত হয়।

রোববার (১৪ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টার দিকে দুলাল সিদ্দিকের ট্রাক্টর ইট নিয়ে চৌমুহনী বাজার এলাকা দিয়ে যাবার সময় জাহাঙ্গীর ও তার লোকজন ট্রাক্টরটি আটক করে রাখে। এ সময় দুলাল সিদ্দিকী সেখানে গিয়ে গাড়ি আটকের কারণ জানতে চাইলে বিএনপির নেতা জাহাঙ্গীর আলম ও তার লোকজন দুলাল সিদ্দিকীর উপর হামলা করে তাকে পিটিয়ে আহত করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় দুলাল সিদ্দিকীকে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

রাতেই দুলাল সিদ্দিকী বাদি হয়ে জাহাঙ্গীর আলমসহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে মাধবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, অভিযোগটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।