মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বনিম্ন ভাতা ২০ হাজার টাকা করার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি বোর্ডের ৬৬তম সভার সমাপনীতে সোমবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এ কথা জানান সরকার প্রধান।

তিনি বলেন, ‘আমরা ১৯৯৬ সালে প্রথমবার ক্ষমতায় আসার পর মাসিক ৩০০ টাকা থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা দেয়া শুরু করি। এখন ভাতা শুরু হয় ১২ হাজার টাকা থেকে। কিন্তু আমি জানি এটা কিছুই না। এজন্য আমরা সভায় সিদ্ধান্ত নিয়েছি নিচের ভাগের যে স্লটগুলো রয়েছে সেগুলোকে একটাতে নিয়ে আসা যায় কি না। আমরা ভাতা শুরু করব ২০ হাজার টাকা থেকে। মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটি করতে একটু সময় লাগবে কিন্তু আমরা এটা করব। মুক্তিযোদ্ধারা ২০ হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। বীরশ্রেষ্ঠ বা বীর উত্তম তাদের ভাতাটা আলাদা থাকবে।

‘আমরা ক্ষমতায় আসার পর অনেক বীরশ্রেষ্ঠ পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধাদের ঘর করে দিয়েছি। যারা দেশের জন্য এত বড় ত্যাগ স্বীকার করেছেন সেই মুক্তিযোদ্ধারা কষ্ট করে থাকবেন, অন্তত আমি সরকারে থাকতে এটা হবে না।’

ট্রাস্টি বোর্ডের সভা শেষে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা জিটুপি পদ্ধতিতে প্রদানের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।