আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, দলের সিদ্ধান্ত না মেনে যারা পৌরসভা নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন তারা চরম বেয়াদব। যিনি আমাদের মা সমতুল্য। যিনি তার পিতা মাকে হারিয়ে ভোট-ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আন্দোলন ও সংগ্রাম করে রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে দেশকে উন্নয়নের শিখরে নিয়ে গেছেন। সেই শেখ হাসিনাকে যারা বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখায় সেই বেয়াদবদেরকে কি ভোট দেবেন এমন প্রশ্ন উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে রাখেন তিনি।

তিনি বলেন, বেয়াদব সন্তানদের যেমন কেউ পছন্দ করেন না। তেমনি আওয়ামী লীগ বেয়াদবদের পছন্দ করে না। আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্ত যারা বর খেলাপ করেছেন তারা আর কখনও নৌকার মনোনয়ন পাবেন না। তারা আওয়ামী লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিস্কার হবেন।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে তিনি হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিমের সমর্থনে ৫টি পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

নানক আরও বলেন, হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিম আওয়ামী লীগের পরিক্ষিত সৈনিক। জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন নৌকায় ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করলে হবিগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নের দায়িত্ব তিনি নেবেন। তিনি আতাউর রহমান সেলিমকে নৌকায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।

পথসভায় অন্যান দের মাঝে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুর রহমান সফিক, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হুসেন চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান শহিদ উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী।

সভা পরিচলনা করেন হবিগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোতাচ্ছিরুল ইসলাম।