মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার খেয়াঘাট বাজারে সিএনজি অটোরিক্সার ভাড়া নিয়ে কথাকাটাকাটি জের ধরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও ফাকা গুলি ছুড়ে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, শনিবার দুপুরে রাজনগর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের খেয়াঘাট বাজারে হামিদপুর গ্রামের বাসিন্দা জিলু মিয়ার ছেলে সিএনজি চালক আরিফ মিয়ার সাথে পার্শবতী তুলাপুর গ্রামের বাসিন্দা ও বর্তমান ইউপি মেম্বার লুৎফুর রহমানের ভাতিজা কাজল মিয়া ও বিলাল মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুইপক্ষ মারামারি শুরু করে। খবর পেয়ে দু’পক্ষের আত্মীয়স্বজন মারামারিতে যোগ দেয়। পরে পুলিশ এসে বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও ফাকা গুলি ছুড়ে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এঘটনায় দু’পক্ষেরকমপক্ষে ১৫জন আহত হয়েছেন। আহতদের রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

রাজনগর থানার ওসি আবুল হাসিম বলেন, বর্তমানে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে আছে এবং পুলিশ সতর্ক রয়েছে যাতে ঘটনাটি আর না বাড়ে। এঘটনায় এখনও কোন মামলা দায়ের হয়নি।