হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে মাস্ক না পড়া, সরকারি আইন অমান্য ও করোনা প্রতিরোধে ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এসময় ১০টি মামলায় ৬ হাজার ১শ টাকা জরিমানা করা হয়।

শনিবার বিকেলে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. মিনহাজুল ইসলাম উপজেলার ব্রাক্ষণডুরা ইউনিয়নের অলিপুর ও পুরাইখলা বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এ সময় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করা এবং মাস্ক পরিধান না করায় ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও পথচারিকে ‘সংক্রমণ রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইন) ২০১৮ এর ২৫ (২) ধারা অনুযায়ী ১০টি মামলায় ৬ হাজার ১শ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে ইউএনও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাস্ক বিতরণ করেন।

শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. মিনহাজুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন- করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে হলে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। করোনা রোগীর সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। জনগণ যদি সচেতন না হয় তাহলে করোনা বাড়বেই। জনগণের সচেতনতা বাড়াতে এ অভিযান অব্যহত থাকবে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কাউছার মাহমুদ তোরনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে।