এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি এবং দৈনিক প্রভাকরের সম্পাদক আব্দুল হালীমের মাতা ফাতেমা পারভীন (৭৫) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তিনি শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় হবিগঞ্জ শহরের নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তিনি ৩ ছেলে, ৪ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। সাংবাদিক আব্দুল হালীমের মায়ের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন অনেকে।

এদিকে শনিবার রাত ১০টায় তেঘরিয়া আল হুসাইনিয়া জামে মসজিদে ফাতেমা পারভীনের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে তেঘরিয়া কবরস্থানে সমাহিত করা হয় তাঁকে।

মরহুমার নামাজে জানাজায় অংশ নেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম, বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) হবিগঞ্জ কার্যালয়ের প্রধান লেঃ কর্ণেল সামিউন্নবী শিবলী, সাবেক মেয়র ও বিএনপি নেতা আলহাজ্ব জি কে গউছ, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল, বিএনপি নেতা এডভোকেট এনামুল হক সেলিম, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি চৌধুরী মো. ফরিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাসুদ আলী ফরহাদ, হবিগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মিজানুর রহমান শামীম, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শোয়েব চৌধুরী, সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাসেল চৌধুরী ও সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন, সময় টিভি ও মানবজমিনের জেলা প্রতিনিধি রাশেদ আহমেদ খান, নিউজনাউটুয়েন্টিফোরের জেলা প্রতিনিধি শরীফ চৌধুরী, স্বদেশবার্তার নির্বাহী সম্পাদক মুজিবুর রহমান, একাত্তর টিভির জেলা প্রতিনিধি শাকিল চৌধুরী, মাবনকন্ঠের জেলা প্রতিনিধি পাবেল খান চৌধুরী, দৈনিক প্রভাকরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মো. সহিবুর রহমান, বিজয়ের প্রতিধ্বনীর বার্তা সম্পাদক সাইফুর রহমান তারেকসহ হবিগঞ্জে কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ। এছাড়াও হবিগঞ্জের নানা শ্রেণীপেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নামাজে জানাজায় অংশগ্রহণ করেন।