সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ১৪ জন।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার কোনাবাড়ীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে।

তারা হলেন, বগুড়ার শাজাহানপুর থানার মৃত মোকসেদ আলীর ছেলে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ফজলুর রহমান (৭০), সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার তামাই গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মো. হান্নান (৬০), ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বেতগাড়ী এলাকার ধীরেনের ছেলে বিমল কুমার (৪৫)।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোসাদ্দেক হোসেন ঘটনাস্থল থেকে বলেন, ময়মনসিংহগামী বাসের সঙ্গে উত্তরবঙ্গগামী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই চারজন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন। গুরুতর আহতদের সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও একজন মারা যান। বাকিদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. শামীম হোসেন বলেন, দুর্ঘটনায় পাঁচজন নিহত ও আরও প্রায় ১৩-১৪ জন আহত হয়েছেন। তবে আহতরা শঙ্কামুক্ত।

সিরাজগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বাহাউদ্দিন ফারুকী বলেন, ময়মনসিংহগামী যুগান্তর পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে উত্তরবঙ্গগামী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হন। নিহতের মধ্যে তিনজনের নাম পরিচয় পাওয়া গেছে। আহতরা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন।