‘আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না’- ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করার অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)-এর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।

সোমবার বিকেলে সিলেটের কতোয়ালি মডেল থানায় এই মামলাটি দায়ের করেন ছাত্রলীগ নেতা কিশোর জাহার সৌরভ।

সৌরভ বলেন, নুর ফেসবুক লাইভে এসে আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না এবং প্রকৃত মুসলমানেরা আওয়ামী লীগ করতে পারেন না- এমন মন্তব্য করে আমাদের ধমৃীয় অনুভূতিতে আঘাত এনেছেন। এধরণের উসকানিমূলক ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য প্রদান করে সমাজে বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেছি।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আবু ফরহাদ মামলা দায়েরের বিষয়ে নিশ্চিত করে বলেন, নুরের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দেওয়া হয়েছে। আমরা তা আমলে নিয়েছি। অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হবে।

এর আগে গত ১৪ এপ্রিল নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, ‘আওয়ামী উগ্রবাদীরা আলেম ওলামাদের নিয়ে যে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, ফেসবুকে লেখালেখি করছে এবং তাদের চরিত্র হননের চেষ্টা করছে তারা কখনও মুসলমান হতে পারে না। এদের কোনো ঈমান নেই। প্রকৃত পক্ষে এরা একটাও ঈমানদার না। কোনো প্রকৃত মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না। আওয়ামী লীগকে সমর্থন করতে পারে না। মুসলমানদের উচিত আওয়ামী লীগ ত্যাগ করা।’

একই ঘটনায় শনিবার ঢাকার শাহবাগ থানায় নুরের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করেন এক যুবলীগ নেতা।

ফেসবুকে এমন মন্তব্য প্রসঙ্গে নুরুল হক নুর বলেন, ‘রাজনৈতিক নেতা হিসেবে আমরা অনেক কথা বলি৷ সে জায়গা থেকে আমি এ ধরনের কথা বলেছিলাম। আমার মনে হয় না, সে লাইভে আইন-শৃঙ্খলা বিরোধী বা কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এ রকম কোন কথা বলেছি। তারপরও আমার কথায় কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে পরের আরেকটি লাইভে আমি ক্ষমাও চেয়েছি। এরপর আর এ বিষয় নিয়ে তো কিছু করার থাকে না।’