করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশজুড়ে শুরু হওয়া সপ্তাহব্যাপী লকডাউনে মার্কেট–শপিং মল বন্ধের প্রতিবাদে সিলেটের একাধিক স্থানে ব্যবসায়ীরা সমাবেশ ও মানববন্ধন করছেন। এসময় সড়কে দাঁড়িয়ে সরকারের এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছেন তারা।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে গত সোমবার সকাল ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত পর্যন্ত চলাচল ও কাজে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার। এ সময় শুধু জরুরি সেবা ছাড়া প্রায় সবকিছু বন্ধ থাকবে। আজ মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো পালিত হচ্ছে লকডাউন।

এ সময় বিক্ষোভকারীরা বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউন দিলে শতভাগ লকডাউন দিতে হবে। কোনো কোনো খাত ছাড় দিয়ে কোনো কোনোটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করাটা অন্যায়। ব্যবসায়ীরা দোকানপাট খোলা রাখতে পারলে নিজেদের খাবারদাবারের সংস্থান হবে, কর্মচারীরা বেতন পাবেন।

তারা আরও বলেন, সারাবছর ব্যবসায়ীরা এই সময়ের দিকে তাকিয়ে থাকেন। ঈদের সময় ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নেন। তিন ধাপে ব্যবসা ভেদে এ সময় কেনাবেচা হয়। রোজার আগের ১৫ দিন, রোজার প্রথম ১৫ দিন ও শেষ ১৫ দিন। এ সময়ে এসে দোকানপাট বন্ধ হওয়া মানে পথে বসে যাওয়া।

বিক্ষোভকারীদের দাবি, যেভাবে বিশেষ বিবেচনায় শিল্প-কারখানা চালু রাখা হয়েছে, সেভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মার্কেট খোলা রাখার সুযোগ দেয়া হোক। তারা সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুপুর ১২ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ব্যবসা করতে চান এবং অনতিবিলম্বে সরকার কর্তৃক ঘোষিত লকডাউন প্রত্যাহারের দাবি জানান।