সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় হিন্দুদের বাড়িতে হামলার ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন র‌্যাবের ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) বেলা ১১টায় উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রাম পরিদর্শন করেন তিনি।

এর আগে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে নিয়ে কটাক্ষ করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়াকে কেন্দ্র করে বুধবার (১৭ মার্চ) সকালে এ হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। গ্রামের ঝুমন দাস আপন নামের এক যুবকের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট দেয়ার পর রাতে এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।

এরপর বুধবার সকাল থেকে দিরাই শাল্লা উপজেলার কয়েক হাজার মানুষ গ্রামটি ঘেরাও করে রাখে। পরে নোয়াগাঁও গ্রামে হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকটি বাড়িঘরসহ মন্দিরে হামলা করে। তবে কেউ হতাহত হননি।

নোয়াগাঁও গ্রাম পরিদর্শনকালে র‌্যাবের ডিজি বলেন, ‘হামলার ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের কেউ রেহাই পাবে না।
জড়িতদের কঠিন শাস্তি দেয়া হবে। ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত হবে। এ গ্রামের নিরাপত্তার স্বার্থে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।’ এ সময় ধর্মীয় সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি ত্যাগ করে সব ধর্মের প্রতি উদার হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বুধবার ঘটনার পরপর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন ও পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান।