স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ এনে স্ত্রীদের দায়ের করা ৬৫টি মামলার মধ্যে ৫৪টি নিষ্পত্তি হয়েছে একদিনে। এর মধ্যে স্ত্রীর সঙ্গে সংসার করার শর্তে ৫৪ জনকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তবে স্ত্রীদের সাথে সংসার করতে না চাওয়ায় একই অভিযোগে আরও ১১টি মামলায় ১১ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তাদের প্রত্যেককে দেড় বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ রায় দেন সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন।

আদালত জানায়, ১১টি পরিবার একিভূত করতে সক্ষম না হওয়ায় ও নির্যাতিত স্ত্রী ও তাদের সাক্ষীরা স্বামীর বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দেওয়া এবং তা প্রমানিত হওয়ায় ১১ জনকে দেড় বছর করে কারাদণ্ড দেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, নূরুল ইসলাম, মো.শামীম, নজরুল ইসলাম, শাহেদ চৌধুরী, রকিবুল ইসলাম, ইমরান আহমদ, আল-আমিন, মো.সোহেল মিয়া, আল-আমিন, মইন উদ্দিন, রিপন মিয়া।

তারা প্রত্যেকেই কারাগার বরণকে সাদরে বেচে নিয়েছে। কিন্তু স্ত্রীদের সাথে সংসার করতে চাননি।

তারা জানিয়েছেন, তাদের স্ত্রীদের যন্ত্রণায় নিজে ও নিজের পরিবার অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। যে কারণে তারা আর নিজেদের স্ত্রীদের নিয়ে সংসার করতে চাননি।