দিনরাত প্রতিবেদক : হবিগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় শেখ মহিউদ্দিন নামে এক আসামিকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার বিকেলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হালিম উল্লাহ এ রায় ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত শেখ মহি উদ্দিন মাধবপুর উপজেলার সুন্দরপুর গ্রামের কুদরত আলীর ছেলে।

কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. আল আমিন হোসেন জানান, মহি উদ্দিন নামে ওই ব্যক্তি একই গ্রামের এক নারীকে ২০০৯ সালের ২৫ এপ্রিল ধর্ষণের চেষ্টা করে। পরে এ ঘটনায় নির্যাতিতা নারী বাদী হয়ে মাধবপুর থানায় একটি মামলা করেন। দীর্ঘদিন আদালতে মামলাটি চলার পর স্বাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত মহি উদ্দিনকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। রায়ের পর বিকেলেই তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট আবুল হোসেন মোল্লা মাসুম জানান, রায়ে বাদী ও তার পরিবারের লোকজন সন্তুষ্ট হয়েছে। তারা ন্যায় বিচার পেয়েছে।