দিনরাত প্রতিবেদক : হবিগঞ্জে এফিডেভিটের মাধ্যমে বয়স বাড়িয়ে বাল্যবিয়ে করায় অপরাধে অন্তর ঋষি (১৮) নামে এক কিশোরকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার রাত ৯টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ কারাদণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত অন্তর ঋষি সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের ঋষিপাড়া এলাকার রাজেন্দ্র ঋষির ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, সুহিলপুর ইউনিয়নের ঋষিপাড়া এলাকার রাজেন্দ্র ঋষির ছেলে অন্তর ঋষির সঙ্গে একই এলাকার ১৪ বছরের এক কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

সম্পর্কের সূত্র ধরে সোমবার দুপুরে পরিবারের কাউকে না জানিয়ে নিজেদের বয়স বাড়িয়ে হবিগঞ্জ জেলা থেকে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করে। বিষয়টি স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের মাধ্যমে জানতে পেরে বর-কনে ও তাদের পরিবারের লোকজনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। পরে বর অন্তরকে এক মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়। পাশাপাশি কনের পরিবারের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন, অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় মেয়েটিকে তার পরিবারের হেফাজতে দেয়া হয়েছে। অবৈধ উপায়ে বয়স বাড়িয়ে হবিগঞ্জ থেকে এফিডেভিট করার বিষয়টি আমাদের জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসককে জানানো হবে।