দিনরাত প্রতিবেদক : হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের আর মাত্র তিনদিন বাঁকি। সম্মেলনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপণা বিরাজ করছে। চলছে বিভিন্ন আলোচনা, সমালোচনাও। এর মধ্যে সম্মেলনের শেষ মূহুর্তে এসে নতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান মিজানের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়া।

শনিবার রাতে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেয়র মিজানুর রহমান মিজান নিজেই।

‘ক্লিন’ ইমেজের ব্যক্তি হিসেবে জেলার সর্বত্র মিজানুর রহমান মিজান বেশ পরিচিত। এছাড়া দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ তিনি। শুধু জেলায়ই নয়, কেন্দ্রেও ‘ক্লিন’ ইমেজের নেতা হিসেবে তাঁর বেশ সুনাম রয়েছে। কেন্দ্রের ‘গুড় বুকে’ থাকার কারণেই মুলত বিগত পৌরসভা উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে তিনি দলীয় মনোনয়ন পান। আর পৌরসবাসীর কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকার কারণে নির্বাচনে ৭ হাজার ৬২১ ভোট বেশি পেয়ে তিনি মেয়র নির্বাচিত হন।

মেয়র মিজানুর রহমান মিজান বর্তমানে হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি জেলা যুবলীগের সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ উঠেনি। ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত তিনি দেশ, জনগণ ও দলের জন্য কাজ করে আসছেন।

এদিকে, মেয়র মিজানুর রহমান মিজার জেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ায় নতুন প্রাণের সঞ্চার হয়েছে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে।

তিনি বলেন- ‘জেলা আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাকর্মী আমাকে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ার জন্য আহবান জানান। আমি সারাজীবন জনগণ ও দলের জন্য কাজ করে গেছি। যার কারণে নেত্রী আমার উপর শতভাগ আস্থা রেখে হবিগঞ্জ পৌরসভার উপ-নির্বাচনে আমাকে দলীয় মনোনয়ন প্রদান করেছিলেন।’
তিনি আরও বলেন- ‘আমি আশা করি, জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি যদি সিলেকশনের মাধ্যমে হয়, তাহলে নেত্রী পূর্বের ন্যায় এবারও আমার প্রতি আস্থা রাখবেন। আর যদি নির্বাচন হয়- তাহলেও জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ আমাকে নির্বাচিত করবেন।’